মহামারী করোনা
করোনায় আজ ৬৩ মৃত্যু, শনাক্তেও রেকর্ড অক্সফোর্ডের টিকার শিশুদের ওপর ট্রায়াল স্থগিত অক্সফোর্ডের টিকার শিশুদের ওপর ট্রায়াল স্থগিত এবার ভারতে একদিনে করোনা সংক্রমন ছাড়ালো ১লাখের বেশি দেশজুড়ে লকডাউন চলছে করোনা টিকার ২০ লাখ ডোজ আসছে আজ
মহিউদ্দিন ফারুক অপু
প্রকাশ : ১৩/৪/২০২১ ৭:৩০:৪৭ PM

সরকার দেশের সব মাদরাসার তথ্য চেয়েছে

সরকার কওমিসহ দেশের সকল মাদ্রাসার তথ্য চেয়েছে। জেলা প্রশাসকদের (ডিসি) কাছে নির্ধারিত ছক অনুযায়ী এই তথ্য চায় মাদ্রাসা শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাদ্রাসা ও কারিগরি শিক্ষা বিভাগ।

আরো খবর


থাসময়ে বৈশাখী ভাতা পাচ্ছেন না শিক্ষকরা!


শিক্ষকদের বৈশাখী ভাতার চেক ছাড়


শিক্ষকদের শতভাগ বোনাসের দাবি যৌক্তিক!


বৈষম্য দুর করে শতভাগ উৎসব ভাতা দেওয়ার দাবি


বেসরকারি শিক্ষকরা শিক্ষাক্ষেত্রে সকল বৈষম্য নিরসনের দাবি জানিয়ে লিখিত দিয়েছেন


রবিবার (১১ এপ্রিল) মাদ্রাসার শিক্ষা অদিফতরের পরিদর্শক শহীদ লতীফ  স্বাক্ষরিত চিঠিতে কওমি ও আলেয়া মাদ্রাসাসহ সব মাদ্রাসার তথ্য ছক অনুযায়ী আগামী ১৩ এপ্রিলের মধ্যে পাঠাতে নির্দেশ দেওয়া হয়।

এর আগে গত ৮ এপ্রিল স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগ দেশের কওমি, আলিয়া ও অন্যান্য সব মাদ্রাসার তথ্য চায় কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের সচিবের কাছে।

ওইদিনই কারিগরি শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালকের কাছে নির্ধারিত ছকে তথ্য চায় শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগ।

রবিবার (১১ এপ্রিল) স্বাক্ষরিত অধিদফতরের চিঠিতে বলা হয়, করোনার সংক্রমণ আশংকাজনকভাবে বৃদ্ধি পাওয়ায় কওমিসহ (এতিমখানা ছাড়া) সকল আবাসিক ও অনাবাসিক মাদ্রাসা বন্ধ রাখার বিষয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগ থেকে গত ৬ এপ্রিল একটি প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।

সেই প্রেক্ষিতে কওমি মাদ্রাসাসহ (এতিমখানা ছাড়া) সকল মাদ্রাসার হালনাগাদ তথ্য নির্ধারিত ছকে জরুরিভাবে পাঠাতে অনুরোধ করা হয়েছে।

নির্ধারিত ছকে জেলার নাম মাদ্রাসার সংখ্যা, শিক্ষক, ছাত্র, ছাত্রীর সংখ্যা চাওয়া হয়। কওমি আলিয়া ও অন্যান্য মাদ্রাসার তথ্য আলদাভাবে উল্লেখ করতে হবে নির্ধারিত ছক অনুযায়ী।

চিঠিতে কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগ এবং স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের চাওয়া তথ্য নির্ধারিত ছকে আগামী ১৩ এপ্রিলের মধ্যে হার্ড কপি/ইমেইলে (shaheed.lateef@gmail.com) তথ্য পাঠানো নিশ্চিত করতে নির্দেশ দেওয়া হয়।

এ বিষয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের রাজনৈতিক ও আইসিটি শাখার অতিরিক্ত সচিব মো. জাহাঙ্গীর আলম বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, সরকার যেহেতু মাদ্রাসাগুলো করোনাকালে বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছে এবং প্রজ্ঞাপন জারি করেছে, সে কারণে আমরা জানতে চেয়েছি যে, কোন কোন জায়গায় কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান চালু রয়েছে। সেগুলোর কত ছাত্র বাড়ি গিয়েছে। কী পরিমাণ তাদের উপস্থিতি রয়েছে।

এতিমখানা ছাড়া সকল মাদ্রাসা বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। সেটা নিশ্চিত করার জন্য আমরা পুলিশকে অনুরোধ করেছি যে আপনারা এগুলোর তালিকা করে আমাদের জানান, যাতে সরকারি আদেশ পালন হয়।



সপ্তাহের সর্বাধিক পঠিত খবর সমূহ
অন্যান্য খবর