• |
×
৭ কোটি ভ্যাকসিন পাবে বাংলাদেশ, প্রতি ডোজের দাম ১৩৮-১৭০ টাকা কারা অধিদপ্তর সূত্র জানায়, আদালতে ফাঁসির রায় ঘোষণার পর আসামিকে কারাগারের কনডেম সেলে নেওয়া হয়। এই বন্দীদের মধ্যে ৪৯ জন নারী। দেশে এখন পর্যন্ত কোনো নারীর ফাঁসি কার্যকর হয়নি। বরগুনায় রিফাত শরিফ হত্যা মামলায় ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত আয়শা আক্তার ওরফে মিন্নিসহ মোট ৮৮৮ জন বন্দী দেশের ৬৮ কারাগারের কনডেম সেলে আছেন। কনডেম সেলের বন্দীদের জন্য আচরণবিধিও ভিন্ন দেশের ৬৮ কারাগারে মোট ৮৮৮ জন বন্দী কনডেম সেলে
সংবাদদাতা, নাসিরনগর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া)
প্রকাশ : ২১/৯/২০২২ ৯:১৩:০০ PM

নাসিরনগরে সামাজিক-সম্প্রীতি সমাবেশ

ধর্মীয় সম্প্রীতি ও সামাজিক বন্ধনকে সুসংহত করার লক্ষ্যে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে  সামাজিক-সম্প্রীতি সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বুধবার ( ২১ সেপ্টেম্বর ২০২২) সকালে নাসিরনগর উপজেলা প্রশাসনেন উদ্যোগে উপজেলা পরিষদ চত্বরে  এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

এতে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ ফখরুল ইসলাম,অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন ব্রাহ্মণ বাড়িয়া-১ সাংসদ বি,এম ফরহাদ হোসেন সংগ্রাম, নাসিরনগর উপজেলা মৎস্য  অফিসার শুভ্র এর   সঞ্চালনায় সম্প্রীতি সমাবেশে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন জেলা প্রশাসক মোঃ সাহগীর আলম ব্রাহ্মণ বাড়িয়ার পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আনিসুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সরাইল সার্কেল) মোঃ আনিছুর রহমান,

উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ রাফি উদ্দিন আহমেদ, আওয়ামীলীগের সভাপতি অসীম কুমার পাল,থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ হাবিবুল্লা সরকার ,বীর মুক্তিযোদ্ধা কার্ত্তিক চন্দ্র দাস, উপজেলা আহলে সুন্নাতুল জামাতের সাধারণ    সম্পাদক  ও কে বি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক  কাজী আতাউর রহমান গিলমান,পুরুহিত অমৃত লাল সরকার ওলামা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক  মাওঃ আব্দুস সাত্তার, উপজেলা পূঁজা উদযাপন কমিটির সাধারণ সম্পাদক বাবু নির্মল চৌধুরী,

সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তৃতায়   বলেন, বাংলাদেশ সম্প্রীতির এক উজ্জল দৃষ্ঠান্ত । নাসিরনগর উপজেলায় জাতি-ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সকল ধর্মের মানুষ মিলেমিশে একত্রে বসবাস করে আসছেন।’
তিনি বলেন: জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আমাদের সংবিধানে সকল ধর্ম ও বর্ণের মানুষের সমান অধিকার সুনিশ্চিত করেছিলেন।

তিনি সাম্প্রদায়িক ও সামাজিক বন্ধনের এ  ধারাবাহিকতা অক্ষুন্ন রাখতে সকলকে সচেষ্ট থাকার আহবান জানান।

উল্লেখ্য সম্প্রীতি সমাবেশে উপজেলার বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারী, রাজনৈতিক নেতা, সাংবাদিক, মসজিদের ইমাম, মন্দিরের পুরোহিত, বীর মুক্তিযোদ্ধা, বিভিন্ন স্কুল, মাদ্রাসা ও কলেজের শিক্ষকসহ সর্বস্তরের জনগণ অংশ নেন।