Image

আদালতে স্বীকারোক্তি দিয়েছেন বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশনের (পিএসসি) সাবেক গাড়িচালক সৈয়দ আবেদ আলী প্রশ্নপত্র ফাঁস সংক্রান্ত তার দুর্নীতির বিষয়ে।

স্বীকারোক্তিতে সব বলে দিয়েছেন তিনি। তার হাত ধরে অনেকেই হয়েছেন বিসিএস ক্যাডার। সব ক্যাডারেই রয়েছেন তার লোক।

আবেদ আলীর হাত ধরে যারা বিসিএস ক্যাডার হয়েছেন, তাদের তালিকা প্রণয়নের কাজ থেকে শুরু করেছে একটি সংস্থা।

আরো পড়ুন:

      প্রশ্নফাঁসে তারা জড়িত, জানতো পিএসসি                         

 

পিএসসির প্রশ্নফাঁস শুরু হয় আগে থেকেই। গত ২৪তম ব্যাচে এর ব্যাপকতা বাড়ে। পরে ২৫তম ব্যাচে প্রশ্নফাঁস বিষয়টি ধরা পড়ে। ওই সময় পিএসসির মেম্বার ছিলেন মাহফুজুর রহমান।

আর তার ড্রাইভার ছিলেন সৈয়দ আবেদ আলী। তার নেতৃত্বে একটি গ্রুপ থাকতো। তারা কাস্টমার যোগাড় করে দেওয়ার দায়িত্বে ছিল।

ঢাকায় গুলশান এলাকায় একটি ভবনে এবং নীলফামারির কিশোরগঞ্জ উপজেলায় ‘ভিন্ন জগৎ’ নামক একটি রিসোর্ট ছিল মাহফুজুর রহমানের। যারা টাকা দিতো, তাদের এই দুই স্থানে রেখে পরীক্ষার একদিন আগে প্রশ্নপত্র দেওয়া হতো। সেখানে পড়ালেখার ব্যবস্থা করা হতো।

পরের দিন পরীক্ষায় তারাই সর্বোচ্চ মার্ক পেত। এভাবে মাহফুজুর রহমান হাজার হাজার কোটি টাকা কামিয়েছেন।

ওই সময় দলীয় নেতাদের তালিকাও আসতো। সেই তালিকা অনুযায়ী তিনি টাকা নিতেন এবং নেতাদের ভাগ দিতেন। স্বাস্থ্যের আলোচিত বিতর্কিত মিঠু ঠিকাদারও প্রশ্নফাঁস এই চক্রের সঙ্গে জড়িত ছিলেন।

তার উত্থান মূলত এভাবেই। সৈয়দ আবেদ আলীর হাত ধরে যারা বিসিএস ক্যাডার হয়েছেন, তাদের তালিকা প্রণয়নের কাজ মঙ্গলবার (০৯ জুলাই) থেকে শুরু করেছে একটি সংস্থা।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আবেদ আলী জানিয়েছেন, সৈয়দ আবেদ আলী শত শত কোটি টাকার সম্পদের মালিক। ঢাকায় তার একটি ছয়তলা বাড়ি, তিনটি ফ্ল্যাট ও একটি গাড়ি রয়েছে। গ্রামের বাড়িতে রয়েছে ডুপ্লেক্স ভবন। তবে আবেদ আলীর আরও সম্পদ রয়েছে।

অপরাধ বিশেষজ্ঞদের মতে, ড্রাইভার আবেদ আলী যদি শত শত কোটি টাকার মালিক হন, তাহলে তিনি পিএসসির সদস্য মাহফুজুর রহমানসহ যেসব কর্মকর্তার গাড়ি চালিয়েছেন, তারা কত হাজার কোটি টাকার মালিক, তা আর বোঝার অপেক্ষা রাখে না। মাহফুজুর রহমানের বিরুদ্ধে ওই সময় মামলা হয়।

পরে তিনি দেশ ছেড়ে পালিয়ে যান। কিন্তু ততোক্ষণে হাজার হাজার কোটি টাকার মালিক বনে যান।

তার সঙ্গে বিএনপি-জামায়াত জোটের একটি রাজনৈতিক সিন্ডিকেট ছিল, তাদের কতিপয় ক্ষমতাধর নেতা প্রশ্নফাঁসের এই টাকার ভাগ পেতেন। মাহফুজুর রহমান ছিলেন হাওয়া ভবন কানেকটেড।

পিএসসিতে আলাদা একটি রুম ছিল। এখানে বসে তিনি রাজনৈতিক কর্মকাণ্ড পরিচালনা করতেন। দলীয় সংসদ সদস্য মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন। এ কারণে তাকে ভয় পেতেন পিএসসির চেয়ারম্যানসহ অনেকে।

এদিকে আবেদ আলীর সঙ্গে প্রশ্নফাঁসে জড়িত আরও একজন চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারীকে ১০ কোটি টাকার চেকসহ মঙ্গলবার (০৯ জুলাই) গ্রেপ্তার করেছে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী। প্রশ্নপত্র ফাঁসের সঙ্গে তিনি জড়িত। আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে। তার মাধ্যমে বের হবে কোন কোন কর্মকর্তা জড়িত এবং এই টাকার ভাগ কারা পেত।

এই ঘটনার প্রেক্ষিতে শীর্ষ প্রশাসনের টনক নড়েছে। সব প্রশাসনে ফাঁস হওয়া প্রশ্নের মাধ্যমে বিসিএস ক্যাডার হয়েছেন। মাহফুজুর রহমানের সময় বিএনপি-জামায়াত-শিবিরসহ চার দলীয় জোটের দলীয় নেতাকর্মীরা বেশি ঢুকেছে বিসিএস ক্যাডারে। তবে দলের পরিচয় দিলেও টাকা দেওয়া লাগছে প্রত্যককে।

শত শত কোটি টাকা একটি ব্যাচ থেকে কামিয়েছে তারা। আবেদ আলী স্বীকারোক্তিতে সব বলে দিয়েছে। এখন সরকারি প্রায় সব পর্যায়ে দুর্নীতি, অনিয়ম ও অব্যবস্থাপনা বিরাজ করার নেপথ্যে রয়েছে ফাঁস হওয়া প্রশ্নের মাধ্যমে বিসিএস ক্যাডার হওয়া। তারা চাকরিতে প্রবেশ করেছে দুর্নীতির মাধ্যমে।

সোমবার (০৮ জুলাই) বাংলাদেশ রেলওয়ের উপসহকারী প্রকৌশলী পদে নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁসে জড়িত অভিযোগে রাজধানীর শেওড়াপাড়ার ওয়াসা রোডের নিজ ফ্ল্যাট থেকে সৈয়দ আবেদ আলী ও তার বিশ্ববিদ্যালয়পড়ুয়া ছেলে সৈয়দ সোহানুর রহমান ওরফে সিয়ামসহ ১৭ জনকে গ্রেপ্তার করেছে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী।

বিসিএসের ক্যাডার এবং নন-ক্যাডার পদের ৩০টি নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্ন ফাঁসের ঘটনায় গ্রেপ্তার ১৭ জনের মধ্যে সাত জন স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

জবানবন্দিতে তারা বলেছেন, প্রশ্নপত্র চাকরিপ্রার্থীদের হাতে দেওয়া হতো না। পরীক্ষার আগের রাতে ঢাকা ও এর আশপাশ এলাকায় নিরাপদ জায়গায় (চক্রের সদস্যদের ভাষায় বুথ) রাখা হতো।

রাজধানীর পল্টনে একটি গোডাউনে চাকরিপ্রার্থীদের জড়ো করা হতো। সারা রাত প্রশ্নের উত্তর মুখস্ত করিয়ে সকালে পরীক্ষা দিতে পাঠানো হতো।

সর্বশেষ রেলওয়ের উপ-সহকারী প্রকৌশলী নিয়োগ পরীক্ষার ৪৬ জন প্রার্থীকে রাজধানীর পল্টনের একটি পানির ফিল্টারের গুদামে রাখা হয়েছিল।

বিসিএস পরীক্ষার প্রিলিমিনারি ও লিখিত পরীক্ষার প্রশ্নপত্র এই চক্রটি ২০০২ সালে ২৪তম বিসিএস পরীক্ষা থেকে শুরু করে সর্বশেষ ৪৫তম বিসিএস পরীক্ষার প্রশ্নপত্রও তারা ফাঁস করেছে।

এর পাশাপাশি পিএসসির অধীনে বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের নন ক্যাডার পদে নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্নপত্র তারা ফাঁস করেছে।

পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) প্রধান মোহাম্মদ আলী বলেন, এই ঘটনার সঙ্গে অনেকের নাম আসছে। জড়িত প্রত্যেককে গ্রেপ্তার করা হবে।

পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, প্রশ্নফাঁস ঘটনার সঙ্গে যারাই জড়িত থাকুক, ছাড় দেওয়া হবে না। যারা জড়িত তাদের প্রত্যেককে আইনের আওতায় আনা হবে।

মাদক পরীক্ষা/ ১১৬ মাদকাসক্ত পুলিশ সদস্য চাকুরিচ্যুত

প্রতিকী ছবি

Image
মাদক পরীক্ষায় (ডোপ টেস্ট) ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) কনস্টেবল থেকে উপপরিদর্শক (এসআই) পদমর্যাদার ১২৬ জন মাদকাসক্ত হিবে শনাক্ত হয়েছেন। এরমধ্যে চাকুরিচ্যুত হয়েচেন ১১৬ জন। ব্যবস্থা নেওয়ার আগে একজন মারা গেছেন এবং আরেকজন অবসরে চলে গেছেন। পুলিশ সদস্যদের মাদকমুক্ত করতে বছর তিনেক আগে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ এই মাদক পরীক্ষা চালু করে। বিস্তারিত আসছে....
বাংলাদেশ ডিএমপি চাকুরি পুলিশ মাদক
তিন বিভাগে বৃষ্টির সম্ভাবনা, বাড়তে পাড়ে তাপমাত্রাও

বৃষ্টি -ফাইল ছবি

Image
দেশের তিন বিভাগে হালকা বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। তবে শুষ্ক থাকবে দেশের আবহাওয়া। আবার তাপমাত্রা সামান্য বাড়তেও পাড়ে। আজ শনিবার আবহাওয়াবিদ আফরোজা সুলতানা জানিয়েছেন, ঢাকা, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগে হালকা বৃষ্টি হতে পারে। তবে মেঘলা আকাশসহ সারাদেশের আবহাওয়া শুষ্ক থাকার কথাও জানিয়েছেন তিনি। এদিকে গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টা আবহাওয়া অধিদপ্তরের পরবর্তী ২৪ ঘন্টার পূর্বাভাসে জানাগেছ, দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ। একারণে আবহাওয়া মূলত শুষ্কই থাকবে। তবে আগামী ৫ দিনের পূর্বাভাসে বৃষ্টি এবং বজ্রসহ বৃষ্টির কথা বলা হয়েছে।
বাংলাধেশ বঙ্গোপসাগর বৃষ্টি আবহাওয়া
ভয়াল কালো রাত আজ

-ছবি সংগৃহিত

Image
আজ ২৫ মার্চ। ১৯৭১ সালের আজকের এই রাতে নিরিহ বাঙালির ওপপর গণহত্যা চালিয়েছিল পাকবাহিনী। নির্বিচারে গুলি করে হত্যা করা হয়েছিল হাজার মানুষকে। স্বামীর সামনে ধর্ষণ করা হয়েছিল নববধূকে। এরপর ২৬ মার্চ রাতেই স্বাধীনতার ঘোষণা দিয়েছিলেন বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।
পাকিস্তান বাংলাদেশ গণহত্যা ১৯৭১ বঙ্গবন্ধু
বুড়িগঙ্গায় ভাসছিল বাঙালির লাশ

-ছবি সংগৃহিত

Image
আজ ২৫ মার্চ। ১৯৭১ সালের আজকের এই রাতে নিরিহ বাঙালির ওপপর গণহত্যা চালিয়েছিল পাকবাহিনী। থরে থরে পড়েছিল লাশ। সড়ক-ডোবা, নদী। কোথায় নেই গণহত্যায় নিহতের নিথর দেহ। এমন অমানবিক হত্যাকাণ্ডের বিরুদ্ধে পৃথিবীব্যাপি ঘৃণা প্রকাশ করা হয়। বিস্তারিত আসছে....
নিহত গণহত্যা
২৫ মার্চ কালরাত/ এক মিনিট অন্ধোকারে থাকবে দেশ

-ছবি সংগৃহিত

Image
আজ ২৫ মার্চ। ১৯৭১ সালের আজকের এই রাতে নিরিহ বাঙালির ওপপর গণহত্যা চালিয়েছিল পাকবাহিনী। নির্বিচারে গুলি করে হত্যা করা হয়েছিল হাজার মানুষকে। স্বামীর সামনে ধর্ষণ করা হয়েছিল নববধূকে। থরে থরে পড়েছিল লাশ। সড়ক-ডোবা, নদী। কোথায় নেই গণহত্যায় নিহতের নিথর দেহ। এমন অমানবিক হত্যাকাণ্ডের বিরুদ্ধে পৃথিবীব্যাপি ঘৃণা প্রকাশ করা হয়। এরপর ২৬ মার্চ রাতেই স্বাধীনতার ঘোষণা দিয়েছিলেন বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। আজ ২৫ মার্চ কালরাতকে স্মরণীয় করে রাখতে দেশব্যাপী এক মিনিট নীরবেতা পালন করা হবে। সরকাররের নেওয়া এই কর্মসূচিতে আজ শনিবার (২৫ মার্চ) দেশের মানুষ রাত ১০টা ৩০ মিনিট থেকে ১০ টা ৩১ মিনিট পর্যন্ত ১ মিনিট আলো নিভিয়ে অন্ধোকারে একসঙ্গে দাঁড়িয়ে নিরবতা পালন করবে। এছাড়া দিবসটি উদযাপান করা হবে যথাযোগ্য মর্যাদায়।
বাংলাদেশ অন্ধোকার কালরাত গণহত্যা
আরাভের ব্যপারে ইন্টারপোল ও দুবাই পুলিশের সাথে যোগাযোগ হচ্ছে

-ছবি সংগৃহিত

Image
আলোচিত স্বর্ণ ব্যবসায়ী পুলিশ হত্যা মামলার আসামি রবিউল ইসলাম আরাভ খানের বিরুদ্ধে রেড নোটিশ জারি করা হয়েছে। তবে তার ব্যপারে ইন্টারপোল ও তুবাই পুলিশের সাথে যোগাযোগ অব্যহত রাখা হয়েছে বলে জানিয়েছেন পুলিশ মহাপরিদর্শক চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুন। আজ শনিবার (২৫ মার্চ) রাজধানীর কাওরানবাজার প্যানপ্যাসিফিক সোনারগাও হোটেলে এন্টি টেরোরিজম ইউনিটের (এটিইউ) অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের এই কথা বলেন তিনি।। এদিকে আতাউর-জিসান-আরাভ তিনজনই এখন দুবাইয়ে বসবাস করছেন। সম্প্রতি আলোচনায় আসা আরাভ খান দুবাইয়ে স্বর্ণ ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতিও হয়েছেন। সূত্র বলছে, আন্তর্জাতিক পুলিশ সংস্থা ইন্টারপোলের রেড নোটিশের তালিকায় রয়েছে ৬২ বাংলাদেশি। এরমধ্যে আতাউর রহমান মাহমুদ চৌধুরী এবং জিসান আহম্মেদ দীর্ঘদিন ধরেই দুবাইয়ে অবস্থান করছেন। তার সাথে আবার যুক্ত হয়েছেন আরাভ খান। মূলত আতাউর এবং জিসান ঢাকার অপরাধ জগতের অন্যতম সন্ত্রাসী ছিলেন। এরআগে ২০১৯ সালে দুবাই পুলিশের হাতে আটক হয়েছিলেন জিসান। তবে চার বছরের কুটনৈতিক তৎপরতায়ও জিসানকে দেশে ফেরানো যায়নি। মূলত জিসান দুবাইতে জামিনে মুক্ত হওয়ার পর আত্মগোপনে চলে গেছেন। এরসাথে এখন নতুন করে যুক্ত হয়েছেন পুলিশ হত্যা মামলার আসামি রবিউল ইসলাম আরাভ খান। আরাভ খানের বাড়ি গোপালগঞ্জে।
আইজিপি ইন্টােরপোল আরাভ খান
কমতে শুরু করেছে ব্রয়লার মুরগির দাম

খামারে ব্রয়লার মুরগি।-ছবি সংগৃহিত

Image
খামার খেকে ব্রয়লার মুরগি বিক্রি হচ্ছে ১৯৫ টাকা কেজি দরে। মূলত মুরগির দামের উর্দ্ধগতির ফলে দেশের বড় চারটি কোম্পানি খামার থেকেম সর্বোচ্চ ১৯৫ টাকা কেজিতে মুরগি বিক্রি শুরু করেছে। একারণে ভোক্তা পর্যায়ে ব্রয়লার মুরগির দাম কমতে শুরু করেছে। গত বৃহস্পতিবার ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সাথে আলোচনা শেষে কোম্পানিগুলো ১৯৫ টাকায় ব্রয়লার মুরগি বিক্রির ঘোষণা দেয়। এরপরই বাজারে মুরগির দামে প্রভাব পড়তে শুরু কয়েছে। মূলত- ১৯০ থেকে ১৯৫ টাকায় খামার থেকে ব্রয়লার মুরগি বিক্রি শুরু করেছে কাজী ফার্মস, আফতাব বহুমুখী ফার্মস, সিপি বাংলাদেশ ও প্যারাগণ পোলট্রি অ্যান্ড হ্যাচারি। এরআগে রমজান মাস আসতে না আসতেই দাম বেড়েছে ব্রয়লার মুরগির। বাজারে কোনো পন্যের দামই ঠিক থাকছে না। রাখতে পারছেনা বাজার নিয়ন্ত্রণ। ব্যবসায়ীরা মনে করেন, একশ্রেণির অসাধু চক্র বা বাজার সিন্ডিকেট এর জন্য অনেকাংশে দায়ী। তবে সরকারের সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় বারবারই বলছে, রমজানে সব পণ্যের দাম নিয়ন্ত্রণে রাখা হবে। দেশে খাদ্যপণ্যের পর্যাপ্ত মজুত রয়েছে। নিয়মিত বাজার মনিটরিং করা হবে। কিন্তু বাস্তব চিত্রের সাথে একদম ভিন্ন। রাজধানীর বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা যাচ্ছে, প্রতিদিনই কোনো না কোনো খাদ্যপণ্যের দাম বাড়ছে। সবশেষ ২৪ ঘণ্টায় বাজারে ব্রয়লার মুরগির দাম কেজিপ্রতি ২০ থেকে ২২ টাকা পর্যন্ত বেড়েছে। এর আগের দিন গত শনিবারও কেজিতে দাম বাড়ে ৭-৮ টাকা। সে হিসাবে গত শুক্রবারের পর অর্থাৎ তিনদিনে ব্রয়লার মুরগির দাম কেজিপ্রতি ৩০ থেকে ৪০ টাকা পর্যন্ত বেড়েছে। গত শুক্রবার প্রতি কেজি ব্রয়লার মুরগি ২৫০ থেকে ২৬০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হয়েছে। আজ সোমবার তা বিক্রি হচ্ছে ২৮০ থেকে ২৯০ টাকা পর্যন্ত। বিক্রেতারা বলছেন, সরবরাহ কম থাকায় এমনিতেই মুরগির সংকট। তার ওপর গত দুদিনে বৃষ্টিতে সরবরাহ আরও কমেছে। এ কারণে বাজারে দাম বেড়ে গেছে। তবে এক্ষেত্রে করপোরেট কোম্পানিগুলোর বাজার নিয়ন্ত্রণের বিষয়টিও তাদের কথায় উঠে আসে। বাজার সংশ্লিষ্টরা মুক্তপ্রভাতকে জানিয়েছেন, ব্রয়লার মুরগির বর্তমান দাম অতীতের সব রেকর্ড ছাড়িয়ে গেছে। বেশ কয়েক সপ্তাহ ধরে ব্রয়লার মুরগির দাম বাড়তে বাড়তে এখন প্রতি কেজি প্রায় স্বাভাবিক দামের থেকে ১২০ থেকে ১৩০ টাকা বেশি দামে বিক্রি হচ্ছে। মাসখানেক আগেও প্রতি কেজি ব্রয়লার মুরগির দাম ছিল ১৫০ থেকে ১৬০ টাকা। এদিন বাজারে গরুর মাংস প্রতি কেজি ৭৫০ টাকা আর খাসির মাংস প্রতি কেজি এক হাজার ২০০ টাকায় বিক্রি হতে দেখা গেছে। তবে বাজার মনিটরিং করা হলে এভাবে আর দাম বাড়বে না বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।
বাংলাদেশ দাম মুরগি ব্রয়লার
স্মৃতিসৌধে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা নিবেদন

স্মৃতিসৌধে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা নিবেদন।-ছবি সংগৃহিত

স্মৃতির পাতায় ৭১

-ছবি সংগৃহিত

Image
স্মৃতির পাতা থেকে ভেসে আসছে ১৯৭১ সালের ২৬ মার্চের কথা। আজ সেই ২৬ মার্চ। মহান স্বাধীনতা দিবস। দিবসটি উপলক্ষে সকালে জাতীয় স্মৃতিসৌধে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন।
বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতা ১৯৭১
গাছের গুড়ি ইট-কাঠ দিয়ে ফার্মগেটে প্রথম প্রতিরোধ

-ছবি সংগৃহিত

Image
গাছের গুড়ি, ইটকাঠ, লোহার চাং, গাড়ির ভাঙা যন্ত্রাংশ দিয়ে ফার্মগেটে প্রথম প্রতিরোধ গড়ে তোলা হয়। দিনটি ছিল ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ সন্ধ্যা। একটা গাছ কেটে সড়কে ফেলে দেওয়া হলো। গাছটি কাটার সময় বিদ্যুতের তারের ওপর পরে পুরো এলাকা বিদ্যুৎহীন হয়ে পড়ে। চারদিক ঘুটঘুটে অন্ধোকার হয়ে গেল। এই অপরাশেনে তেজগাঁ থানার দুইজন কনস্টেবলও ছিলেন। বিস্তারিত আসছে.....
বাংলাদেশ ১৯৭১ প্রতিরোধ স্বাধীনতা
গুলিস্তানে বিস্ফোরণ/ চিকিৎসাধীন আরো একজনের মৃত্যু

-ছবি সংগৃহিত

Image
রাজধানীর গুলিস্তানের সিদ্দিকবাজারে ভয়াবহ বিস্ফোরণের ঘটনায় শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আরো একজন মারা গেছেন। আজ রোববার ২৬ মার্চ সকাল ৯ টার দিকে তিনি মারা যান। বিস্তারিত আসছে...
মৃত্যু অগ্নিকাণ্ড গুলিস্তান
বিএনপিকে দেশের বাহিরের কেউ ক্ষমতায় বসিয়ে দেবে না

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।-ছবি ফোকাস বাংলা

Image
বিএনপি মনে করে দেশের বাহিরের কেউ তাদের ক্ষমতায় বসিয়ে দেবে। কারণ বাংলাদেশে অবৈধভাবে ক্ষমতা দখলের সংস্কৃতি ছিল। যারা অবৈধভাবে ক্ষমতা দখলের মধ্যদিয়ে রাজনীতে এসেছিল এখন তারাই গণতন্ত্রের ছবক দেয়। বিএনপির উদ্দেশ্যে আজ সোমবার এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, শুধু দেমের ভেতরে নয়, দেশের বাইরে গিয়েও নালিশ করা বিএনপি চরিত্র। তারা সব সময়ই মনে করে দেশের বাহিরে থেকে এসে কেউ তাদের ক্ষমতায় বসিয়ে দেবে। বাংলাদেশের মানুষ এখন সচেতন। বিদেশিদের কাছে নালিশ করে কোনো লাভ হবে না। বিএনপিকে দেশের বাহিরের কেউ ক্ষমতায় বসিয়ে দেবে না।
বিএনপি শেখ হাসিনা প্রধানমন্ত্রী
সংলাপ নয় বিএনপিকে আলোচনার জন্য ডাকা হয়েছে

আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনের নিজ দপ্তরের সামনে সংবাদ সম্মেলনে সিইসি কাজী হাবিবুল আউয়াল।-ছবি সংগৃহিত

Image
সংলাপ নয় বিএনপিকে অনানুষ্ঠানিক বৈঠকের জন্য ডাকা হয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল। তিনি বলেন, বিএনপিকে অনানুষ্ঠানিক বৈঠকের ডাকার বিষয়ে সরকারের কোনো হাত ছিলনা। আজ মঙ্গলবার (২৮ মার্চ) রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনের নিজ দপ্তরের সামনে সংবাদ সম্মেলনে সিইসি এসব কথা বলেন। বিস্তারিত আসছে...
বাংলাদেশ সিইসি বিএনপি নির্বাচন
দুর্দান্ত জয়ে সিরিজ বাংলাদেশের

-ছবি সংগৃহিত

Image
টাইগার দেওয়া পাহাড়সম রান তারা করতে নেমে এক সাকিবেই টালমাটাল আইরিশ শিবির। ২০৩ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে ১৭ ওভার শেষে ৯ উইকেটে ১২৪ রান তুলতে পেরেছে আয়ারল্যান্ড। লক্ষ্যটা বড় হওয়ায় ম্যাচের ফলাফল আগেই মোটামুটি অনুমান করা গিয়েছিল। যা অনুমান তাই হলো। ওয়ানডেতে বড় বনে গেছে বাংলাদেশ। এটি অনেক দিন আগে থেকেই। কিন্তু টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশের হঠাৎ বদলে যাওয়া। এই বদলে যাওয়াকে আপনি যেভাবেই দেখেন না কেন-বর্তমান সময়ে সব বিভাগেই চমক দেখাচ্ছেন লিটন, রনি,সাকিব, তাসকিনরা। ব্যাটে যেমন ফুল ঝড়ছে। তেমনি বোলিংয়ে আগুন ঝড়াচ্ছেন বাংলাদেশের তিন পেশার তাসকিনরা। তবে এই বদলে যাওয়ার পেছনে কারণ তো অব্যশই আছে। কী সেই কারণ। আগের মেয়াদেও অনেক কিছুই বদলে দিয়েছিলেন চন্ডিকা হাথুরুসিংহে। এবার আবার দ্বিতীয় মেয়াদে কাজ শুরু করেছেন। অল্প কয়দিনের এই পরিবর্তন সত্যি চোখে পড়ার মতো। এখন ওয়ানডের পাশপাশি টি-টোয়েন্টিতেও দাপুটে দল হয়ে ওঠেছে বাংলাদেশ। ঘরের মাঠে এরআগেও ভালো করেছে। কিন্তু ইংল্যান্ড আর আয়ারল্যান্ডে বিপক্ষে সাফল্য যেভাবে এসেছে, সেটার প্রশংসা সবার মুখে মুখে। বিস্তারিত আসছে....
আয়ার‌ল্যান্ড বাংলাদেশ ক্রিকেট খেলা
সাংবাদিক শামসুজ্জামানের বিরুদ্ধে আরো মামলা হচ্ছে শুনেছি

-ছবি সংগৃহিত

Image
প্রথম আলোর সাংবাদিক সামসুজ্জামানের বিরুদ্ধে করা মামলার বিষয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেছেন, `এখন পর্যন্ত দু-তিনটির খবর জানি, আরো মামলা হচ্ছে. আমরা শুনেছি।‘ আজ বৃহস্পতিবার (৩০ মার্চ) সচিবালয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন তিনি। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, প্রাথমিকভাবে প্রথম আলো ও একাত্তর টেলিভিশনের তথ্যের জন্য সিআইডি তাকে (প্রথম আলো সাংবাদিক শামসুজ্জামান) জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিয়েছিল। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাকে ছেড়ে দিয়েছিল। পরে বিভিন্ন জায়গায় মামলা হওয়ায় তাকে আবার গ্রেপ্তার করা হয়।
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী পুলিশ প্রথম আলো সাংবাদিক
দেশজুড়ে ঝড়-বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর

-ছবি সংগৃহিত

Image
দেশের ৮ বিভাগেই ঝড়-বৃষ্টি হওয়ার কথা জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। এছাড়া বিক্ষিপ্তভাবে কিছু কিছু জায়গায় শিলা বৃষ্টিও হতে পারে। আজ শুক্রবার সকাল ৯ টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘন্টার পূর্বাভাসে এই তথ্য জানানো হয়েছে। আবহাওয়া অফিস বলছে, দেশের ঢাকা, চট্টগ্রাম, খুলনা, রাজশাহী, রংপুর, সিলেট, বরিশাল ও ময়মনসিংহ বিভাগে অস্থায়িভাবে দমকা হাওয়াসহ ঝড়-বৃষ্টি এবং বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। একই সাথে কিছু কিছু স্থানে শিলা বৃষ্টিও হতে পারে।
আবহাওয়া বাংলাদেশ বৃষ্টি ঝড়
প্রবাসে যাওয়া হলো না সোহেলের, শালার সাথে চলে গেলেন দুলাভাইও

লাশ হয়ে ফিরলেন শালা-দুলাভাই

Image
ভাগ্য ফেরানোর স্বপ্ন নিয়ে বেরিয়ে লাশ হয়ে ফিরলেন শালা-দুলাভাই। পারিবারিক ঋন ৮ লাখেরও উপরে। দায়-দেনা কাটিয়ে ওঠার স্বপ্ন নিয়ে জমি বন্ধক রেখে নিয়েছিলেন মধ্য প্রাচ্যের দেশ ওমানের ভিসা। পহেলা এপ্রিল স্বপ্ন জয়ের উদ্দেশ্যে যাত্রা করার কথা থাকলেও চাঁদপুর-রায়পুর আঞ্চলিক মহাসড়কের হাজিগঞ্জ গাছতলা ব্রিজ এলাকায় সিএনজি-বাস দুর্ঘটনায় দুজন নিহত হয়। নিহত দুজন হলেন, সোহেল হোসেন (২৫), রুবেল হোসেন (২৬)। দুজনের বাড়ি লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলার ৮নং দক্ষিণ চরবংশী ইউনিয়নে চরকাচিয়া গ্রামে। এরমধ্যে নিহত সোহেল ওমান যাওয়ার কথা ছিল। সরজমিনে ৩১ মার্চ রাত ৯টা নাগাদ গিয়ে জানা যায়, শুক্রবার দুপুর ১২ টায় চরকাচিয়া গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে বের হন দুজন (শালা-দুলাভাই) এরপর রায়পুর থেকে সিএনজি যোগে চাঁদপুরের লঞ্চ ঘাটের উদ্দেশ্য যাত্রাকালে আনন্দ পরিবহনের সাথে দুর্ঘটনায় প্রান যায় তাদের। রুবেল হোসেন নামে নিহত ব্যাক্তি নিহত সোহেলের বোন জামাই। বছর দেড়েক আগে বিয়ে হওয়া রুবেলের রয়েছে ছয় মাস বয়সী মিনহা নামের একটি কন্যা সন্তান। অবুঝ মিনহাকে কারোর জানানোর সাধ্য নেই ইতোমধ্যেই মারা গেছেন তার বাবা-মামা। জীর্ণশীর্ণ ঘরে বসবাস করা মিনহার মামার পরিবারটির মোট ঋণের পরিমান প্রায় ৮-৯লাখ টাকা। গ্রাম্য মহাজন ও এনজিও থেকে এসব টাকার অধিকাংশ ঋণ নিয়েছে তারা। ছেলে মারা যাওয়ায় এই ঋণের টাকার বিষয়টি হয়ে দাঁড়িয়েছে তাদের দুঃখের অন্যতম কারণ।৷ স্বজন হারানোর দুঃখ আর ভবিষ্যৎ নিয়ে শঙ্কায় নিহত সোহেলের পরিবারে চলছে শোকের মাতম। বিলাপ কন্ঠে দৈনিক মুক্ত প্রভাত প্রতিবেদককে সোহেলের মা নুরজাহান বেগম বলেন, আঁর মাতিন-রতন নাই। দেনা-হেনা,কষ্ট-দুঃখ করি বিদাশের লাই লাইন দিছি। কে জাইনতো আঁর বাবা শ্যাষ অই যাইবো। আঁর ঝিঁ জামাইগাও নাই। ঝিঁয়ের ঘরো ওগ্গা নাতিন আছে। আমরা অন নিঃস্ব অই গেছি। অন্যদিকে নিহত সোহেলের বোনজামাই রুবেলের বাড়িতেও বিরাজ করছে একই অবস্থা। পরিবার সুত্রে জানা যায়, বেলা তিনটা নাগাদ তারা মৃত্যু সংবাদ পায়। দুর্ঘটনার আনুমানিক সময় ২.৩০-৩ টা - পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়। নিহত রুবেলের বাবা আবু কালাম সর্দার বলেন, আঁর মাইজ্জা হোলাগারে চাপা দি মাইচ্ছে আনন্দ পরিবহন। আঁই এর বিচার চাই। তাদের প্রতিবেশী দেলোয়ার খান নামের ব্যাক্তি প্রতিবেদকে বলেন, এরা খুবই দরিদ্র। সংসার চালাতে কষ্ট হয়। পরিবারে একমাত্র আয়ের উৎস ছিল নিহত সোহেল। তার বোনের জামাই রুবেলও একই দুর্ঘটনায় নিহত হয়, তার একটি কন্যা সন্তান আছে। পরিবার দুটির আর্থিক অবস্থান বিবেচনায় নিয়ে সরকারি-বেসরকারি সাহায্য-সহযোগিতা কামনা করছি।
টাকা প্রবাসী ঋন বাস দূর্ঘটনা নিহত দুলাভাই শালা
বদলগাছীতে শিশু ধর্ষন চেষ্টার অভিযোগ; ৬০ হাজার টাকায় রফদফা

শিশু ধর্ষন

Image
নওগাঁর বদলগাছীতে ৭বছরের শিশুকে ধর্ষণের চেষ্টা। ঘটনা ধামাচাপা দিতে ৬০হাজার টাকায় রফাদফা করলেন আওয়ামী লীগ নেতা ফুলবর সহ স্থানীয় মন্ডল মাতবর। অভিযুক্ত রেজ্জাক হোসেন(৫৫) বদলগাছীর সাবেক ভোলা মেম্বারের ছেলে। জানাযায়, গত ২৩/০৩/২০২৩ইং রোজ বৃহস্পতিবার দুপুর ২টায় প্রতিবেশী, সাবেক ভোলা মেম্বারের পুত্র রেজ্জাক হোসেন (৫৫) বড়ই দেওয়ার প্রলোভনে তার নিজ বাড়িতে ঘরের ভিতরে জামা খুলে ৭বছরের শিশুকে ধর্ষনের চেষ্টা করে মর্মে অভিযোগ উঠেছে। শিশুটির চিৎকারের আশেপাশের লোকজন এগিয়ে এসে শিশুটিকে উদ্ধার করে। স্থানীয়রা বলেন, বিষয়টি তাৎক্ষনিক ধামাচাপা দেওয়ার জন্য গ্রামের আওয়ামী লীগ নেতা ফুলবর হোসেন, অবসর প্রাপ্ত সৈনিক ছাত্তার হোসেন সহ বেশ কিছু গ্রাম্য মাতবর গিয়ে গত ২৫/০৩/২০২৩ইং তারিখে গোপন ভাবে শফিকুলের বাড়িতে বসে ৬০ হাজার টাকায় ধামাচাপা সহ আপোষ করেছেন। এবিষয়ে শিশুটির দাদা রোমজান আলীর কাছে মোবাইল ফোনে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আপোষ হয়েছে টাকা-পয়সা নিতে চাইনি তবুও কিছু। বিষয়টি জানার জন্য আওয়ামী লীগ নেতা ফুলবরের ০১৭৩৪৩০৮৩০১ মোবাইল নম্বরে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোন ধরেন না। স্থানীয় ট্রাক্টর গাড়ির মাটি ব্যবসায়ী মোহাম্মদ আলীর কাছে মোবাইল ফোনে জানতে চাইলে তিনি বলেন, শফিকুলের বাড়িতে বসে আপোষ হয়েছে আমি শেষে গিয়ে শুনেছি ৬০ হাজার টাকা নগদ ১০ হাজার টাকা। এ ব‍্যপারে রাজ্জাকের স্ত্রীর আনজুয়ারার সঙ্গে কথা বললে তিনি বলেন ৫০ হাজার টাকা প্রদানের জন্য ১৫ দিন সময় দিয়েছেন ফুলবর। এ ব‍্যপারে স্থানীয় মেম্বার শামীম হোসেনের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, বিষয়টি ফুলবর ভাই গোপনে শফিকুলের বাড়িতে বসে ৬০ হাজার টাকায় আপোষ করেছেন শুনেছি। এ ব‍্যপারে বদলগাছী থানা অফিসার ইনচার্জ আতিয়ার রহমান বলেন, এ ব‍্যপারে এখনো কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে ব‍্যবস্থা নেওয়া হবে।
থানা অভিযুক্ত টাকা ধর্ষন শিশু
বাঙালি জাতির অর্জন নিয়ে তামাশা করা ফৌজদারি অপরাধ

ওবায়দুল কাদের।-ফাইল ছবি

Image
স্বাধীনতা দিবসের বাঙালি জাতির শ্রেষ্ঠ অর্জন নিয়ে তামাশা করা ফৌজদারি অপরাধ বলে মন্তব্য করেচেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, মহান স্বাধীনতা দিবসে বাঙালি জাতির অর্জন নিয়ে-মর্জাদা নিয়ে তামাশা করা কোনো সাধারণ ভুল নয়। এটি অনৈতিক কাজই নয় বরং এটি ফৌজদারি অপরাধ। আজ শনিবার দুপুরে বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে আওয়ামী লীগ ও সহযোগি সংগঠনের সভাপতি ও সম্পাদকের সাথে যৌথ সভায় তিনি এসব কথা বলেন।
বাংলাদেশ স্বাধীনতা সংবাদ সভা আয়ামী লীগ