• |
×
উল্লাপাড়ায় নদীতে ডুবে দুই ভাইয়ের মৃত্যু ইউক্রেনের সেনার আত্মসমর্পণের সংবাদ সুগন্ধার আনাচে কানাচে স্বজনদের খুঁজছেন ৩৬ পরিবার ভ্রমণের আনন্দে বিষাদ! স্বামী ও সন্তানকে জিম্মি করে গৃহবধূকে দলবদ্ধ ধর্ষণ ৬ শতাধিক রোহিঙ্গা সপ্তম দফায় আজ ভাসানচরে যাচ্ছে করোনা সংক্রমণ ঊর্ধ্বমুখী, বেড়েছে মৃত্যু
মুক্ত ডেস্ক
প্রকাশ : ৫/৮/২০২২ ৯:৪৯:৩২ PM

শিক্ষকের বেত্রাঘাতে ছাত্রের ‍মৃত্যু

সিহাব ওই শিক্ষকের তত্বাবধায়নে আবাসিক ছাত্র হিসেবে নূরানী শিক্ষা গ্রহণ করছিল। কয়েকদিন আগে পড়া না পাড়ার অজুহাতে শিক্ষক আব্দুর রব সিহাবকে বেত দিয়ে বেধরক পিটান। এতে সিহাব গুরুত্বর অসুস্থ হয়ে পড়ে। শিক্ষকরা বিষয়টি চাপা দিতে সেখানেই সিহাবের চিকিৎসার ব্যবস্থা করে।

শিক্ষকের বেত্রাঘাতে মো. সিহাব উদ্দিন (১৪) নামের এক মাদরাসা ছাত্রের মৃত্যু হয়েছে। আজ শুক্রবার (৫ আগস্ট) দুপুরে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় ওই ছাত্র।

শিক্ষকের বেত্রাঘাতের শিকার ওই ছাত্র গুরুত্ব আহত হয়ে পড়লে তাকে কুমেকে ভর্তি করা হয়েছিল। 

নিহত ছাত্র সিহাব উদ্দিন কুমিল্লা জেলার বরুয়া উপজেলার ঝরম ইউনিয়নের শশইয়া গ্রামের শুকুর আলীর ছেলে। সিহাব ,মেড্ডা আল মতিনিয়া নূরানী মাদরাসার ছাত্র ছিল। একই মদরাসার শিক্ষক ছিলেন অভিযুক্ত মাওলানা আব্দুর রব।

পুলিশ জানিয়েছে, বেত্রাঘাতের ঘটনায় ছাত্রের মৃত্যুর ঘটনায় অভিযুক্ত ওই শিক্ষককে আজ শুক্রবার সন্ধায় গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। 

নিহত ছাত্রের স্বজন সাবিকুন নাহার ঝুমুর মুক্ত প্রভাতকে বলেন, বেশ কিছুদিন ধরে সিহাব ওই শিক্ষকের তত্বাবধায়নে আবাসিক ছাত্র হিসেবে নূরানী শিক্ষা গ্রহণ করছিল।  কয়েকদিন আগে পড়া না পাড়ার অজুহাতে শিক্ষক আব্দুর রব সিহাবকে বেত দিয়ে বেধরক পিটান। এতে সিহাব গুরুত্বর অসুস্থ হয়ে পড়ে। শিক্ষকরা বিষয়টি চাপা দিতে সেখানেই সিহাবের চিকিৎসার ব্যবস্থা করে।

কিন্তু ওই চিকিৎসায় সিহাব সুস্থ না হয়ে, আরো অসুস্থ্য হয়ে পড়ে। খবর পেয়ে পরিবারের লোকজন সিহাবকে মাদরাসা থেকে উদ্ধার করে কুমেকে ভর্তি করে। চিকিৎসাধীন অবস্থায় হাসপাতালেই সিহাবের মৃত্যু হয়েছে।

তিনি আরো জানান, বৃহস্পতিবার মাদরাসা থেকে সিহাব উদ্ধার করে বাড়ি রাখা হয়। রাতভর জ্বর-ব্যথায় কাতর হয়ে পড়ে সিহাব। সিহাবকে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে সেখানকার চিকিৎসকরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠান। কুমেকে ভর্তির পর চিকিৎসাধিন অবস্থায় দুপুরে সিহাবের মৃত্যু হয়।

ওই মাদরাসার মুহতামিম মাওলানা আহমেদ শফি মুক্ত প্রভাতকে বলেন, শিক্ষার্থীকে বেত্রাঘাতের বিষয়টি খুবই দুঃখজনক। অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

বড়ুয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ইকবাল বাহার মজুমদার মুক্ত প্রভাতকে বলেন, শিক্ষকের বেত্রাঘাতে ছাত্রের মৃত্যুর খবরটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়। ঘটনাটি তার নজরে এটে ওই ছাত্রের বাড়িতে পুলিশ পাঠানো হয়। ওই ছাত্রের লাশটি ময়না তদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। তাছাড়া অভিযুক্ত শিক্ষককে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে।