শিরোনাম
সুগন্ধার আনাচে কানাচে স্বজনদের খুঁজছেন ৩৬ পরিবার ভ্রমণের আনন্দে বিষাদ! স্বামী ও সন্তানকে জিম্মি করে গৃহবধূকে দলবদ্ধ ধর্ষণ ৬ শতাধিক রোহিঙ্গা সপ্তম দফায় আজ ভাসানচরে যাচ্ছে করোনা সংক্রমণ ঊর্ধ্বমুখী, বেড়েছে মৃত্যু বিজয়ের ৫০ বছর পূর্তিতে দেশবাসীকে শপথ করালেন প্রধানমন্ত্রী সিংড়ায় শিশুর গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার
×

সাইদুল ইসলাম আবির, রায়গঞ্জ(সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি
প্রকাশ : ১৪/১/২০২২ ২:২৮:০৭ PM

টং ঘরে চা,পান বিক্রিতে রহমত আলীর কুড়ি বছরের জীবন সংগ্রাম

সিরাজগঞ্জ জেলার রায়গঞ্জ উপজেলার  ডুমরাই বাঐখোলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পাশে  ছোট একটি টং দোকানে বুধবার (১২জানুয়ারি) রাত ৮টার দিকে কথা হয় রহমত আলী রহম  (৩২)  এর সাথে। সারাদিন দোকানে বসে চা, পান বিক্রি করেন তিনি।

তার এই অদম্য বাঁচার লড়াই অন্যদের বিস্মিত ও শ্রদ্ধাবনত করে।

জানা গেছে, রায়গঞ্জ উপজেলার বাঐখোলা গ্রামের রহিম আলী বকশোর ছেলে রহমত আলী (রহম) । প্রায় কুড়ি বছর ধরে অদম্য রহমত আলী (রহম) জীবন-জীবিকার লড়াই করছেন।

যেদিন দোকান না খোলেন, সেদিন তার আর কোনো আয় হয় না। তাই রোদ কিংবা বৃষ্টি—শীত উপেক্ষা করে প্রতিদিনই রহমে কে দেখা যায় চা বিক্রি করতে।

প্রতিদিন সকালে দোকানে আসেন। বাড়ি ফিরতে ফিরতে রাত হয়। রহমত আলী তিন ছেল সন্তান   স্ত্রী সহ  তার সংসারে সদস্য সংখ্যা পাঁচজন। এই চা বিক্রি করেই কোনোমতে চলে তার সংসার।

রহমত আলী (রহম) বলেন, আমার  কাম কইরা  (খেটে) সংসার আর জীবন চালাই।  ছোট  বেলায় থেকে আমি চায়ের দোকান চালায় ।

প্রায় কুড়ি বছর ধরে চা বিক্রি করার আয় দিয়া আল্লাহর রহমতে চলতাছি। আল্লাহ ভরসা। নিজ হাতে  নিজেই কাম করে সংসার চালাই।

তিনি আরও বলেন, কাজ করে সংসার চলাতেই আমার গর্ব। কারও কাছে হাত পাততে লজ্জা লাগে। তাই কোনো দিনই মানুষের কাছে হাত পাতিনি। এভাবেই চলে যাচ্ছে দিন।

নিজে প্রাথমিক বিদ্যালয় পর্যন্ত লেখা করছি তাই ভালো কোন বড় ধরনের কোন কাজ করতে  পারেননি বলে আক্ষেপ ছিল, তাই সন্তানরা শিক্ষার আলো থেকে বঞ্চিত হোক- এমনটা ভাবেন না তিনি।

এলাকাবাসী অনেকেই বলেন, আমরা সুস্থ মানুষরাও অনেক সময় অন্যের দয়া, করুণা ও সুদৃষ্টি পেতে চাই।

কিন্তু রহমত আলী (রহম)জীবন সংগ্রাম আমাদের জন্য অনুপ্রেরণা হতে পারে। সে কারও দয়া-করুণা বা সুদৃষ্টি পেতে চায় না।পরিশ্রম করে জীবন ও সংসার চালাচ্ছেন।